খাগড়াছড়ি, , মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

রামুতে গ্লোবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টারের ৬ষ্ঠ বর্ষপূর্তি উদযাপন

প্রকাশ: ২০২৩-০৯-০৮ ১২:৪৬:০৫ || আপডেট: ২০২৩-০৯-০৮ ১২:৪৬:১১

রামু প্রতিনিধি: শিশু শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল মেধা বিকাশ ও ইংরেজি শিক্ষা প্রসারে অনন্য ভূমিকা রাখা রামু গেøাবাল ইংলিশ লার্ণিং সেন্টারের ৬ষ্ঠ বর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

গত বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- রামু সরকারি কলেজের সহযোগি অধ্যাপক ও জিইএলসি’র প্রধান উপদেষ্টা মো. আব্দুল হক।

গেøাবাল ইংলিশ লার্নিং সেন্টারের সভাপতি সাহেদুল ইসলাম রায়হানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- বাঁকখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক নুরুল আমিন, রামু খিজারী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক আবুল কালাম, দৈনিক দৈনন্দিন এর বার্তা সম্পাদক ও এডুন্যাশন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের পরিচালক ইরফান উল হাসান, ও রামু প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সোয়েব সাঈদ, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক প্রনব বড়ুয়া, লট উখিয়ার ঘোনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, রামু চৌমুহনী বণিক সমিতির সাবেক সহ সভাপতি রুহুল আমিন।

প্রতিষ্ঠানের কিডস ট্রেইনার ফাহিমা ইসলাম আরাবি ও তাসনিম হক সামিহার যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন- ট্রেইনার মোহাম্মদ জিয়াউল হক বাদশা। আরও বক্তব্য রাখেন- গ্লোবাল ইংলিশ লার্নিং সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক ও ট্রেইনার মোহাম্মদ ইব্রাহীম ও ট্রেইনার বোরহান উদ্দিন ইমরোজ।

অনুষ্ঠানে কিডস লেভেলের শিক্ষার্থীদের ভোকাবুলারি টেস্ট, কিডস লেভেল বি এর শিক্ষার্থীদের রিটেন টেস্ট, ক্লাব সদস্যদের রিটেন টেস্ট এবং পিঠা উৎসব প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বর্তমান প্রেক্ষাপটে ইংরেজি ভাষার দক্ষতার গুরুত্বারোপ করতে গিয়ে বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাদের সুনাগরিক হিসেবে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে পারলে সুন্দর প্রজন্ম ও সুন্দর ক্যারিয়ার তৈরি হবে। যার জন্য দরকার ইংরেজি ভাষা শিক্ষা। বর্তমানে ইংরেজি ভাষা চাকরির পাশাপাশি ব্যক্তিগত মানোন্নয়নে খুবই জরুরি। তারই আলোকে রামুর মতো একটি এলাকায় পিছিয়ে পড়া ছাত্র-ছাত্রীদের মানোন্নয়ন ও শিক্ষার পরিবেশকে এগিয়ে নিতে গ্লোবাল ইংলিশ লার্নিং সেন্টার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

আলোচনা সভা শেষে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে অতিথিরা পুরুষ্কার তুলে দেন। এতে কিডস লেভেল এ এর শিক্ষার্থী রিয়ন, বি লেভেলের শিক্ষার্থী সোহা, স্পোকেন ব্যাচের ফরহাদ আব্দুল­াহ প্রিনস এবং ক্লাব সদস্য থেকে তাসনিম হক সামিহাকে বেস্ট শিক্ষার্থী হিসেবে পুরষ্কার প্রদান করা হয়। এছাড়াও স্পোকেন ব্যাচ ১৫ এর উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের হাতে সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়। পরে কেক কেটে জিইএলসি এর ৬ষ্ঠ বর্ষ পূর্তি উদযাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন- তৌফিকুল ইসলাম, ফারহানা সেলিম সামিয়া, আসাদ, সিহাব, রিফাত, রিহা খানম, নোসাইফা ও নাঈম। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.