খাগড়াছড়ি, , বুধবার, ১৬ জুন ২০২১

পানছড়িতে রাতের আধারে ফলজ বাগান কেটে দিলো দুর্বৃত্তরা

প্রকাশ: ২০২১-০৫-২৮ ২০:২২:১৯ || আপডেট: ২০২১-০৫-২৮ ২০:২২:২৬

পানছড়ি প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নের শনটিলা ও নয়াপাড়ার সিমানায় আলীচান পাড়া ও কালানাল এলাকায় দুটি ফলজ বাগান বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের আঁধারে কেটে দিয়েছে উপজাতীয় দুর্বৃত্তরা। শনটিলা ও নয়াপাড়ার সিমানা সংলগ্ন ৭.২০ একর জমির বাগানের মালিক ওবাদুল হক আবাদ বলেন, চার বছর ধরে পরিশ্রম করে ৪ শতাধিক আম গাছ, ৬ হাজার সেগুন গাছ সহ বিভিন্ন ফলজ-বনজ গাছ লাগিয়েছিল।

ওবাদুল হক আবাদ বলেন, প্রতিবেশি আলো চাকমা ইতিপূর্বে আমাকে বাগানে না যাওয়ার জন্য বিভিন্ন রকম হুমকি দিত। বাগান পাহারাদারকে উপজাতীয় সন্ত্রাসীগ্রæপের লোকজন তাড়িয়ে দিয়েছে। আবার বাগানে পাহারা না দেওয়ার জন্য জোর পূর্বক ষ্টাম্পে সই-স্বাক্ষর নিয়েছে। পরে আমি থানায় সাধারন ডাইরী করেছি। আমার বাগানের সাথে আলীচান কার্বারীর মেয়ের বাড়ী ও বাগান। বাগনের ক্ষতি করবেনা তার নিশ্চয়তা দিলে উপজাতী আঞ্চলিক সংগঠনের ধার্য্যকৃত চাঁদাও পরিশোধ করি। তার কোন গাছ না কেটে শুধু আমি বাঙ্গালী বলেই আমার বাগান ধ্বংশ করে দিয়েছে।

অপর দিকে একই রাতে কালানাল এলাকার বাসিন্দা মোঃ ইয়াসিন মিয়ার ২ একর জমির ৩ শতাধিক আম গাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

মোঃ ইয়াসিন মিয়ার পিতা তাজুল ইসলাম জানায়, আলীচান পাড়ার দীর্ঘনাথ ত্রিপুরার ছেলে চন্দ্রনাথ ত্রিপুরা ও তার ভাই জ্যোতিনাথ ত্রিপুরার কাছ থেকে ২০১৮ সালে উক্ত জমি ক্রয় করে সেখানে তার ছেলে ইয়াছিন আম বাগান করেছে। গত তিনদিন আগে চন্দ্রনাথ ত্রিপুরা আরো টাকা দাবি করে। এরি মধ্যে সৃজিত বাগান এভাবে কেটে দিয়েছে । কেটে ফেলা বাগানেই কথা হয় আলীচান পাড়ার কার্বারী (গ্রাম্য সরদার) নিরু কার্বারী, বাবন চাকমা ও চন্দ্রনাথ ত্রিপুরার সাথে। তারা জানায়, শুক্রবার সকালে তারা বাগান কেঠে ফেলার কথা শুনে দেখতে এসেছে। কে বা কাহারা বাগান এভাবে কেটে ধ্বংশ করলো তা জানা নাই। এভাবে বাগানের আম, সেগুন ও কলা বাগান ধ্বংশ করায় বাঙ্গালী বাগান মালিকদের মনে বিরাজ করছে আতংক। তাদের ধারনা হয়ত এভাবে অন্যান্য বাঙ্গালীদের বাগানও রাতের আধারে কেটে দিতে পারে। বাগান কর্তনের বিষয় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেন জানান, বাগান মালিক ওবায়দুল হক ও ইয়াসিন মিয়া। পানছড়ি থানা ইনচার্জ (ওসি) মো. দুলাল হোসেন ঘটনান সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি বিষয়টি শুনেছি, বাগান মালিকেরা মামলা দিলে তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.