খাগড়াছড়ি, , সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

পুলিশকে মারধর করে আসামী লুটের হোতা জহির উদ্দিনসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে যৌথ বাহিনী

প্রকাশ: ২০২৩-০১-১৫ ১৫:১৪:১৭ || আপডেট: ২০২৩-০১-১৫ ১৫:১৪:২৩

আবদুর রশিদ, নাইক্ষ্যংছড়িঃ পার্বত্য বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশকে মারধর করে হাতকড়া পরিহিত ২ আসামীসহ ৭ গরু লুটের মূল হোতা জহিরসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ও বিজিবি।

শনিবার (১৪ জানুয়ারী) রাতে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশ, ১১ বিজিবি ও গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির যৌথ অভিযানে তাকে রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ডাক্তার কাটা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) গভীর রাতে নাইক্ষ্যংছড়ি থানা পুলিশের নেতৃত্বে বান্দরবান সদর থানা পুলিশের সহযোগিতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বান্দরবান সদর এলাকা থেকে অপর ২ আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রথমোক্ত জহির উদ্দিন কে জিজ্ঞাসা করা হচ্ছে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায়। আর অপর ২ জনকে বান্দরবান আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন অভিযানে অংশ নেয়া এক পুলিশ কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (১০ জানুয়ারী) সকাল ৭ টায় মিয়ানমার-নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তের ৪৬ পিলারের নিকটবর্তী জারুলিয়াছড়িতে বার্মিজ ৭ গরু কেড়ে নিতে গিয়ে পুলিশের উপর হামলা করেছে চোরাইপশু দস্যুরা। এ সময় ১ জন এস আইসহ ৪ পুলিশ আহত হন। পরে হামলাকারীর বিরুদ্ধে পৃথক ঘটনায় ২ টি মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.