খাগড়াছড়ি, , সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

রামগড়ে শালার হাতে দুলাভাই খুন

প্রকাশ: ২০২৩-০১-২৪ ১৫:১৬:৩১ || আপডেট: ২০২৩-০১-২৪ ১৫:১৬:৩২

মোহাম্মদ শাহেদ হোসেন রানা, রামগড়, খাগড়াছড়িঃ পার্বত্য খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় পৌরসভাধীন ১নং ওয়ার্ড শ্বশ্মান টিলা মদের কারখানার পাশে দীপক চন্দ্র ঘোষ মুন্না (৩৮) নামে এক ব‍্যাক্তিকে পিটিয়ে হত‍্যা করার অভিযোগ উঠেছে তারই আপন শালা (স্ত্রীর ভাই) সাগর ত্রিপুরা সহ তাঁর বন্ধু আকাশ ত্রিপুরা ও রুবেল ত্রিপুরার বিরুদ্ধে। হত‍্যার সন্দেহে সাগর ত্রিপুরাকে আটক করেছে রামগড় থানা পুলিশ।

নিহত দীপক চন্দ্র ঘোষের বাবা রাখাল চন্দ্র ঘোষ জানান, দীপকের সাথে তার স্ত্রীর দীর্ঘ ৩ বছর যাবত পারিবারিক বিভিন্ন সমস্যা চলছে, গত কয়েকমাস পুর্বে উপজেলা চেয়ারম্যান এর কার্যালয়ে সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে একটি বৈঠক হয়। দীর্ঘদিন যাবত সমস্যার কারণে দীপক আর তাঁর স্ত্রী আলাদা থাকছে। এবং তাঁর স্ত্রী চট্টগ্রামে একটি গার্মেন্টস এ চাকরি করছে। বার বার আমরা তাকে আনতে যাই সে আসে না, এক পর্যায়ে তারা ২জনই ডিভোর্স এর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এরপর থেকে দীপকের শালা সাগর ত্রিপুরার (২২) এর সাথে তাঁর কথা কাটাকাটি হয়, সে সূত্রে সাগর তাঁর কয়েকজন বন্ধুকে সাথে নিয়ে গতকাল রাত আনুমানিক ১১.৫০ ঘটিকায় এলাকার দোকান থেকে দীপক বাসায় যাওয়ার পথে লিচু বাগান এলাকায় দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাঁর মাথায় গুরুতর আঘাত করে, পরে তাঁর চিৎকার শুনে এলাকার মানুষ এগিয়ে আসলে হামলা কারীরা পালিয়ে যায়। এলাকা বাসীর সহযোগিতায় দীপককে রামগড় সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্যে ভর্তি করানো হয়, হাসপাতালে দীপক মারা যায়। দীপকের বাবা রাখাল চন্দ্র ঘোষ আরো বলেন আমার ছেলেকে তাঁর স্ত্রী ও শালা পরিকল্পনা করে হত্যা করেছে।

রামগড় থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সামছুল হক সুত্রে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জের থেকে এ হত্যার হতে পারে বলে প্রাথমিক তথ‍্যে জানা গেছে। হত্যার সন্দেহে নিহতের শালা সাগর ত্রিপুরাকে আটক করা হয়েছে এবং লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত চলমান ও মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.