খাগড়াছড়ি, , সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

বঙ্গমাতা পরিষদ বাংলাদেশ খাগড়াছড়ি’র উদ্যোগে ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২জন্মবার্ষিকী পালন

প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৮ ১৭:১৭:১৯ || আপডেট: ২০২২-০৮-০৮ ২১:৩২:২১

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: সারাদেশের ন্যায় বঙ্গমাতা পরিষদ বাংলাদেশ খাগড়াছড়ি জেলা শাখা’র উদ্যোগে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। সোমবার(০৮আগস্ট) সকালে খাগড়াছড়ি জেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ভবন প্রাঙ্গনে বঙ্গমাতা পরিষদ বাংলাদেশ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি সৌরভ তালুকদারের নেতৃত্বে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ে নেতৃবৃন্দ ও সদস্যরা।

শ্রদ্ধা নিবেদনকালে সৌরভ চাকমা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী, বাঙালির লড়াই-সংগ্রাম-আন্দোলনের নেপথ্যের প্রেরণাদাত্রী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী আজ। শেখ মুজিবুর রহমান দীর্ঘ আপসহীন লড়াই-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় ধীরে ধীরে শুধুমাত্র বাঙালি জাতির পিতাই হননি, বিশ্ব বরেণ্য রাষ্ট্রনায়কে পরিণত হয়েছিলেন। এর পেছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তারই সহধর্মিণী, মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। মাত্র পাঁচ বছর বয়সে বেগম মুজিব তার পিতা-মাতা দুই জনকেই হারান এবং ১৯৩৮ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শুধু সহধর্মিণীই ছিলেন না, ছিলেন সহযোদ্ধা ও কর্মপ্রেরণাদাত্রী। এই ত্যাগী নারী বঙ্গবন্ধু পরিবারের সব দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে বঙ্গবন্ধুকে জাতির সেবায় মনোনিবেশ করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। শুধু তা-ই নয়, রাজনীতির নানা দুঃসময়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধুকে দিয়েছিলেন গঠনমূলক পরামর্শ। তার বলিষ্ঠ ও সময়োপযোগী পরামর্শসমূহ জাতির জীবনে সুফল বয়ে এনেছে, যা জাতীয় ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক মোঃ এইচ এম খোরশেদ আলম, সহ-সভাপতি ডা.দেলোয়ার হোসেন, বঙ্গমাতা পরিষদের সহ-সভাপতি প্রণতি তালুকদার, জেলা কমিটির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য শান্তি রঞ্জন চাকমা, প্রনয় তালুকদার, সুদর্শন ত্রিপুরা প্রমুখ।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!