খাগড়াছড়ি, , বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯

খাগড়াছড়িতে দুইদিন ব্যাপী তথ্য প্রাপ্তিতে নারীর অগ্রাধিকার শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধন

প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৭ ১৭:৩৩:১৮ || আপডেট: ২০১৯-০৪-১৭ ১৭:৩৩:২০

দহেন বিকাশ ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়িতে দুইদিন ব্যাপী তথ্য প্রাপ্তিতে নারীর অগ্রাধিকার শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। (১৭ এবং ১৮ এপ্রিল ২০১৯ বুধবার ও বৃহস্পতিবার)।

বুধবার (১৭এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টায় খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ইউএসএআইডির অর্থায়নে ‘‘তথ্য প্রাপ্তির অধিকারে নারীর অগ্রগতি” প্রকল্পের আওতায় মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ ও দি কার্টার সেন্টারের যৌথ উদ্যোগে খাগড়াছড়ি জেলার বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের তথ্য প্রদানকারী কর্মকর্তাদের জন্য ‘‘Right to Information Intensive Training for Government Officials’’ শীর্ষক দুইদিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রশিক্ষণ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী পরিষদের অতিরিক্ত সচিব (সংস্কার) সোলতান আহমেদ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী পরিষদের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) ড. মোঃ শামসুল আরেফিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা প্রশাসক মোঃ শহীদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ আবুল হাশেম, তিন উপজেলার নির্বাহী অফিসারসহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের অন্যান্য কর্মকর্তা এবং দি কার্টার সেন্টার কর্তৃক বাস্তবায়িত ‘‘Advancing Women’s Right of Access to information Project ’’এর চিফ অফ পার্টি সুমনা সুলতানা মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সরকারের মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) ড. মোঃ শামসুল আরেফিন সকলকে সাধুবাদ জানিয়ে প্রশিক্ষনের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। তিন নারীর জন্য সুবিধাজনক পরিবেশ তৈরীর জন্য সরকারী কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানান। তিনি সরকারি কর্মকর্তাদের মানসিকভাবে প্রস্তুতির কথা বলেন এবং নারীরা যাতে সহজেই এবং নির্ভীকভাবে তথ্যের জন্য আসে তার পরিবেশ আমাদের তৈরী করতে হবে। তিনি উল্লেখ করেন যে, তথ্য শুধু তৈরী নয় তার সংরক্ষন, ব্যবহার এবং আইন মোতাবেক ব্যক্তিকে প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে বলে মত প্রকাশ করেন।

বক্তারা উল্লেখ করেন যে, বাংলাদেশের জনসংখ্যার অর্ধেক নারী আর সার্বিক উন্নয়নের জন্য নারীকে বাদ দিয়ে তা সম্ভব নয়। তাই নারীকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করে এগিয়ে নিয়ে যেতে। মন্ত্রী পরিষদের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) ড. মোঃ শামসুল আরেফিন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে শুধু এই কথা বলতে এসেছি যে, সকলে তথ্য আইন ২০০৯ বাস্তবায়নে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবেন এবং নারীর প্রতি আরো সংবেদনশীল আচরণ করবেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

পূর্বের সংবাদ

May 2019
M T W T F S S
« Apr    
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন