খাগড়াছড়ি, , বুধবার, ২৩ মে ২০১৮

অপহৃত ৩ বাঙ্গালীকে উদ্ধারে সংবাদ সম্মেলন; উদ্ধারে ব্যর্থ হলে সোমবার হরতাল

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-২০ ১১:৫৩:৩৭ || আপডেট: ২০১৮-০৪-২১ ০৯:৫০:০১

নিজস্ব প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলাস্থ মাটিরাঙ্গা উপজেলার দুর্বৃত্ত্ব কর্তৃক অপহরণের শিকার তিন বাঙ্গালীকে দ্রুত উদ্ধারে সংবাদ সম্মেলন করেছে পরিবারের সদস্য ও পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি জেলা শাখা।

শুক্রবার (২০ এপ্রিল) বিকাল সাড়ে তিনটায় খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব হলরুমে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, অপহৃত বাহার মিয়ার স্ত্রী, মহরম আলীর ভাই দেলোয়ার হোসেন, সালাউদ্দিনের ভাই মো: নুর উদ্দিন ও পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি মো: লোকমান হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা উপজেলা সভাপতি মো: রবিউল ইসলাম, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার সভাপতি মো: জালাল উদ্দিন প্রমূখ।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি মো: লোকমান হোসেন। গত ১৬ এপ্রিল মাটিরাঙ্গা উপজেলার তিন বাঙ্গালী ক্ষুদ্র কাঠ ব্যবসায়ীকে কয়েক জন উপজাতিয় যুবক কাঠ বিক্রির কথা বলে তাদের মহালছড়ি উপজেলায় নিয়ে যায়। কাঠ ক্রয় করতে মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়িতে গেলে কাঠ পছন্দ হওয়ায় ৭৫ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে পরিবার থেকে নেয়। এরপর তাদের মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। একদিন পরে তাদের সন্ত্রাসীরা অপহরণ করেছে বলে তাদের ফোন থেকে কল আসে। সন্ত্রাসীরা আরও ৭৫ হাজার টাকা দিলে এই তিন জনকে ছেড়ে দেওয়া হবে মর্মে আরও ৭৫ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে নেয়ার পর সকল ফোন বন্ধ করে দেয়। এর পর থেকে তাদের সাথে আর কোন যোগাযোগ করতে পারেনি তারা।

এখনও তাদের কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি বলে জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে অপহৃতদের জীবন নাশের শঙ্কা প্রকাশ করে দ্রুত বাহারসহ ৩ বাঙ্গালী ব্যবসায়ীর নি:শর্ত মুক্তি দাবী করেন তারা। অপহরণের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। একই সাথে এসকল কর্মকান্ড, অপহরণ, চাঁদাবাজি, মুক্তিপন আদায় বন্ধ করে স্বশস্ত্র গ্রুপগুলো কাছে থাকা অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে চিরুনি অভিযানের আহ্বান করেন। সম্প্রতিকালে পাবর্ত্য চট্টগ্রামে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী কর্তৃক গুম,খুন অপহরন ও চাঁদাবাজী বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত। এ সকল হত্যাকান্ড বন্ধ না হলে খাগড়াছড়িসহ পাবর্ত্য চট্টগ্রামে সকল বাঙ্গালিদের সাথে নিয়ে বৃহত্তর প্রতিবাদ ও প্রতিরোধের আন্দোলন গড়ে তুলবে বলে হুশিয়ারী করেন। এছাড়াও লিখিত বক্তব্যে বলেন, আগামী রবিবার (২২ এপ্রিল) এর মধ্যে অপহৃতদের মুক্তি না দিলে আগামী সোমবার (২৩ এপ্রিল) খাগড়াছড়ি জেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষনা দেন।

Leave a Reply

পূর্বের সংবাদ

May 2018
M T W T F S S
« Apr    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় প্রথম পাতা

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন

error: Content is protected !!