খাগড়াছড়ি, , মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১

তথ্য অধিদপ্তরের উদ্যেগে কাপ্তাইয়ে সাংবাদিক ও অংশীজনদের সাথে পিআইডি’র মতবিনিময় সভা

প্রকাশ: ২০২১-১১-২০ ১৬:৩৪:৪৪ || আপডেট: ২০২১-১১-২০ ১৬:৩৪:৫১

মাহফুজ আলম, কাপ্তাই প্রতিনিধিঃ গুজব প্রতিরোধ, উন্নয়ন সংবাদ, গণমাধ্যমের ভুমিকা, অভিযোগ, সু- শাসন ও প্রতিকার, সেবাপ্রদান বিষয়ক সাংবাদিক ও অংশীজনদের সাথে পিআইডি’র মতবিনিময় সভা সম্পন্ন হয়েছে।

২০ নভেম্বর শনিবার রাঙামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের সভা কক্ষ “কিন্নরী’তে অনুষ্ঠিত হয় এ সভা। কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসন ও তথ্য অফিসের সহযোগিতায় আঞ্চলিক তথ্য অফিস, পিআইডি, চট্টগ্রাম এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুনতাসির জাহান এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি তথ্য অধিদপ্তরের সিনিয়র উপ প্রধান তথ্য অফিসার মুহ.সাইফুল্লাহ দেশ, জাতি, সরকারের সফলতা, উন্নয়ন ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ করনসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বাস্তবমুখী বিষয়ে দিকনির্দেশনা মুলক গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য রাখেন।

আঞ্চলিক তথ্য অফিস,পিআইডি, চট্টগ্রামের তথ্য অফিসার মারুফা রহমান ঈমা এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজুল হক, তথ্য অধিদপ্তরের সিনিয়র উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মোঃ আব্দুল জলিল, উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর হোসেন আহসানুল কবীর, চট্টগ্রাম পিআইডির সিনিয়র তথ্য অফিসার আজিজুল হক নিউটন, কাপ্তাই উপজেলা সহকারী তথ্য কর্মকর্তা মোঃ হারুন।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গুনিয়া প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বাসস এর স্টাফ রিপোর্টার জিগারুল ইসলাম জিগার, রাঙ্গুনিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাসুদ নাসির, রাঙ্গুনিয়া দেশ রুপান্তর এর প্রতিনিধি এম এ কোরেশী শেলু, কাপ্তাই গণমাধ্যম ব্যাক্তিত্ব সাংবাদিক মাহফুজ আলম, রাজস্থলী প্রেস ক্লাবের সভাপতি আজগর আলী খাঁন, মানবকন্ঠের রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি আরিফুল হাসনাত, রাজস্থলী প্রেস ক্লাবের’সহ সভাপতি চাউচিং মারমা, সাংবাদিক কবিরুল ইসলাম, সাংবাদিক ইলিয়াছ হোসেন, সাংবাদিক নুরুল আবছার চৌধুরী। সভায় কাপ্তাই উপজেলা, বিলাইছড়ি, রাঙ্গুনিয়া, রাজস্থলী, কাউখালীসহ পাঁচটি উপজেলার সাংবাদিক ও সরকারি কর্মকর্তাসহ প্রায় ৪০ জন এ মতবিনিময় সভায় অংশ গ্রহন করেন।

এইসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার মুহ. সাইফুল্লাহ বলেন, গুজব প্রতিরোধে গণমাধ্যমের ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। যারা দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব বিশ্বাস করে না, তারাই গুজব ছড়িয়ে দেশে অশান্তি বিরাজ করতে চায়। তাই তথ্য যাচাই বাছাই না করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কোন সংবাদ প্রকাশ বা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট না করা শ্রেয়। সরকার সংবাদকর্মীদের উন্নয়নে সবসময় কাজ করে যাচ্ছেন। তথ্য মন্ত্রনালয় এবং গণমাধ্যম কর্মীরা পরস্পরের সাথে সমন্বয় করে কাজ করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!