খাগড়াছড়ি, , বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০

“বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দক্ষতা ও সচেতনতা”শীর্ষক প্রচার প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার মানিকছড়িতে অনুষ্টিত

প্রকাশ: ২০২০-০২-২৪ ২৩:৩৩:০৭ || আপডেট: ২০২০-০২-২৪ ২৩:৩৩:১৩

মো: জাকির হোসেন, মানিকছড়ি প্রতিনিধি: প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এবং উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মানিকছড়িতে অনুষ্টিত হয়েছে“বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দক্ষতা ও সচেতনতা”শীর্ষক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার। এতে উপজেলার জনপ্রতিনিধি,শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি ও সাংবাদিকরা অংশগ্রহন করেন। আর এতে প্রধান আলোচক খাগড়াছড়ি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. সোহেল হোসাইন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ এর সভাপতিত্বে এবং সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা শুভাশীষ বড়ুয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্টিত “বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দক্ষতা ও সচেতনতা”শীর্ষক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনার উদ্বোধন করেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম বাবুল। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রতন খীসা, অফিসার ইনচার্জ আমির হোসেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডলি চৌধুরাণী, ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মোহন,ক্যয়জরী মহাজন, মো. আবুল কালাম আজাদ, অধ্যক্ষ মংসাইঞো মারমা,শিক্ষক মো. আতিউল ইসলাম, এম.কে. আজাদ, ক্যজ মারমা, মো. মনির হোসেন, ইউপি সচিব মো. আবদুল হাকিম, সুমন মিয়া, মো. রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিক আবদুল মান্নান, মো. আলমগীর হোসেন, মিন্টু মারমা, মো. জাকির হোসেনসহ সকল অফিসারবৃন্দ, এনজিও প্রতিনিধি, প্রতিষ্ঠান প্রধান এবং উদ্যোক্তা।

সভায় “বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দক্ষতা ও সচেতনতা”শীর্ষক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনারের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য তুলে ধরে বক্তারা বলেন, দেশের বাইরে(বিদেশে) কর্মরত শ্রমিকরা দক্ষতার অভাবে দিন দিন কর্মহীন হয়ে পড়ছে। অন্যদিকে পাশ্ববর্তী দেশ সমুহের শ্রমিকরা দক্ষ হয়ে বিদেশ গিয়ে অর্থ উর্পাজন করছে। তাই আসুন, এখন থেকে আর কোন অদক্ষ শ্রমিক বিদেশ আমরা না পাঠাই। সরকারিভাবে ৬৪ জেলায় এবং ৪৫টি উপজেলায় কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, সেখান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে দক্ষ ও অভিজ্ঞতা অর্জন করে“জেনে বুঝে বিদেশ যাই, অর্থ সম্মান দুটিই পাই”। সরকারের এ মহৎ উদ্যোগ তৃণমূলে পৌছে দিতে উপজেলা পর্যায়ে এ আয়োজন।

আলোচনায় প্রধান আলোচক খাগড়াছড়ি কারিগরি প্রশিক্ষক কেন্দ্রের অধ্যক্ষ মো. সোহেল হোসাইন প্রেসব্রিফিং এ বলেন, দেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় বিদেশ গমনে পার্বত্য জেলা পিছিয়ে রয়েছে। অথচ সরকার পার্বত্য খাগড়াছড়িতে কারিগরি প্রশিক্ষক কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করে রেখেছে। প্রশিক্ষাণার্থীর অভাবে আমরা সরকারের চাহিদা মোতাবেক প্রশিক্ষিত কর্মী বিদেশ পাঠাতে পারছি না। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী প্রতি বছর প্রতিটি জেলা থেকে ১ হাজার প্রশিক্ষিত কর্মী বিদেশ পাঠানোর ব্যবস্থা থাকলেও বিদেশগামীরা সরকারের সুযোগ নিয়ে প্রশিক্ষিত হয়ে বিদেশ যাচ্ছেনা বলে আজ পদে পদে তারা নির্যাতিত হচ্ছে। অন্যদেশিরা প্রশিক্ষিত হয়ে বিদেশ গিয়ে কোটি কোটি ডলার রেমিটেন্স দেশে পাঠাচ্ছে। আর আমরা বিশ্বের প্রতিযোগিতা থেকে পিছিয়ে পড়ছি। তাই সকলের সহযোগিতায় কারিগরি প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষিত হয়ে দেশের জনশক্তি বিদেশ পাঠাতে তৃণমূলে সরকারের এ বার্তা পৌছে দিতে সকলের সহযোগিতা চাই।

পরে সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ “বৈদেশিক কর্মসংস্থানে দক্ষতা ও সচেতনতা”শীর্ষক প্রচার, প্রেসব্রিফিং ও সেমিনারে অংমগ্রহণকারী সকলকে অভিনন্দন জানিয়ে সরকার প্রদত্ত কারিগরি প্রশিক্ষণে দক্ষতা অর্জন করে অর্থ উর্পাজনে দেশে-বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ নিতে সকলের দৃষ্ঠি আকর্ষণ করেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.