খাগড়াছড়ি, , মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

প্রধান শিক্ষক রহমতউল্লাহ দেওয়ানের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশ: ২০২০-১০-০৮ ২৩:৪২:৫২ || আপডেট: ২০২০-১০-০৮ ২৩:৪২:৫৪

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি: রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার মুসলিম ব্লক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ দেওয়ান এর বিরুদ্ধে বিদ্যালয় এর অর্থ আত্মসাৎ ও চেক জালিয়াতির সহ নানান অভিযোগ করেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি জয়নাল আবদীন( বুলু) এ ব্যাপারে তিনি রাঙ্গামাটি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর একটি অভিযোগ করেন তিনি অভিযোগে উল্লেখ করেন ২০১৯- ২০২০ অর্থবছরের ক্ষুদ্র মেরামতের ১লক্ষ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ ৫০০০০হাজার টাকা ওয়াশব্লক মেরামতের ২০ হাজার টাকা প্রাক-প্রাথমিক এর জন্য বরাদ্দ ১০০০০ টাকা সর্বমোট ২ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৯০০০০ টাকার কাজ করিয়া বাকি ১লক্ষ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন এবং তিনি উল্লেখ করেন ২১-০৯- ২০২০ইং তারিখে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রবিউল হোসেন আকস্মিক পরিদর্শনে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন। এবং ২০১৮-২০১৯অর্থবছরে বিদ্যালয়ের জন্য বরাদ্দকৃত ১ লক্ষ ২৪হাজার টাকা থেকে প্রায় ৭৫হাজার টাকা আত্মসাৎ করেন বিভিন্ন সময়ে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলনের সময় খালি চেকে সভাপতি থেকে স্বাক্ষর নিয়ে  ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে  অফিসে গিয়ে কত টাকা জমা হয়েছে তা দেখে টাকার অংক লিখবেন বলে জানান সর্বশেষ দুটি চেকে সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলন করে বলে অভিযোগ করেন কমিটি ও অভিভাবকদের সাথে প্রতারণা সহকারি শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণ অযোগ্যতা ইত্যাদি নানা অভিযোগে তিনি অভিযুক্ত ইতিপূর্বে বিদ্যালয় উপবৃত্তির টাকা এবং বিদ্যালয়ের তহবিলের বিবিধ টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগে বিভিন্ন বিদ্যালয় থাকাকালীন তিনি ৫থেকে ৬বার বরখাস্ত হয়েছেন বলে দাবী করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মুসলিম ব্লক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রহমত উল্লাহ দেওয়ান বলেন, আমি কমিটিকে অবহিত করে সকল কাজ করেছি  আমার সুনাম নষ্ট করতে কিছু কিছু মানুষ ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে অপপ্রচার করছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমাকে অভিযোগ না দিলেও আমাকে জেলা কর্মকর্তা উক্ত অভিযোগের বিষয়ে অবগত করেন এবং আগামী ১৩ তারিখে জেলা থেকে তদন্ত করার নির্দেশ দেন তবে তদন্ত শেষে উপযুক্ত প্রমান পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নিব।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.