খাগড়াছড়ি, , শনিবার, ৬ জুন ২০২০

দীঘিনালায় মারধর করে ভিডিও ফেসবুকে অপমান সইতে না পেরে কলেজ ছাত্রীর আত্বহত্যা

প্রকাশ: ২০২০-০৩-০১ ১৯:৫৮:১২ || আপডেট: ২০২০-০৩-০১ ১৯:৫৮:১৫

নিজস্ব প্রতিনিধি. দীঘিনালা: খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা উপজেলায় মারধর ও  অপমান সইতে না পেরে  কলেজছাত্রী আত্বহত্যা করেছে| গত রোববার ভোরে দীঘিনালা উপজেলার বড়াদম এলাকার খামারপাড়া গ্রামে এ আত্বহত্যার ঘটনা ঘটে। নিহত কলেজ ছাত্রীর নাম প্রিয়া চাকমা। সে দীঘিনালা সরকারি ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং খামারপাড়া গ্রামের জীবিকাময় চাকমার মেয়ে।

এঘটনায় অভিযুক্ত তিন কলেজ ছাত্রকে আটক করেছে দীঘিনালা থানার পুলিশ। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রিয়া চাকমা গত শনিবার দুপুরে কলেজ শেষ করে বাড়ী ফেরার পথে, উপজেলার নারিকেল বাগান এলাকায় পথ আগলে দাড়ায় একই কলেজের শিক্ষার্থী অনিক চাকমা, জয়েস চাকমা এবং সুমন্ত চাকমা। এ সময় প্রেমের প্রস্তাব রাজী না হওয়ায় মারধর করে এবং মোবাইলে তা ভিডিও করে। পরোক্ষণে মোবাইলে ধারণ করা ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেড়ে দেয়। অপমান সইতে না পেরে পরে বাড়ি ফিরে কাউকে কিছু না বলে প্রিয়া চাকমা রোববার ভোরে বাড়ীর  উত্তর পার্শ্বে আম গাছের সাথে ঝুলে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্বহত্যা করে।

ঘটনা জানাজানি হলে, কলেজ ছাত্ররা অভিযুক্ত তিন শিক্ষার্থী উপজেলার জোড়াব্রিজ এলাকার পুলিন বিহারী চাকমার ছেলে অনিক চাকমা, শান্তিপুর এলাকার সুনীল বিকাশ চাকমার ছেলে জয়েস চাকমা এবং কামাকুছড়া এলাকার জীবন কুমার চাকমার ছেলে সুমন্ত চাকমাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। 

এদিকে ঘটনার পর বড়াদম এলাকার খামারপাড়া গ্রামে পুলিশ গিয়ে প্রিয়া চাকমার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠায়। 

এব্যাপারে প্রিয়া চাকমার মা চিগোন মিলা চাকমা জানান, আমার ২ ছেলে ৩ মেয়ের মধ্যে প্রিয়া সবার ছোট। আমার মেয়েকে মারধর করার পর তারা সেগুলি ভিডিও করেছে। তাই অপমান সইতে না পেরে আত্বহত্যা করেছে। 

প্রিয়া চাকমার বড় বোন পুষ্পলিকা চাকমা মারধরের ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানান।

এব্যাপারে দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, প্রিয়া চাকমার পরিবার থেকে কেহ বাদী না হওয়ায় পুলিশ বাদী হয়ে আত্বহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

পূর্বের সংবাদ

June 2020
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন