খাগড়াছড়ি, , রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০

ত্রিপুরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখতে ছোটবাড়ী পাড়ায় পরিদর্শনে ব্রেড ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি এডা কার্লিস

প্রকাশ: ২০২০-০৩-০৪ ২৩:০৮:০৯ || আপডেট: ২০২০-০৩-০৪ ২৩:০৮:১২

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য অঞ্চলে বিভিন্ন ধরণের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী রয়েছে। তাদের মধ্যে ত্রিপুরা জাতি গোষ্ঠী অন্যতম। তাদের রয়েছে নিজস্ব ভাষা, ঐতিহ্যময় খেলাধুলা, নাইতং রাচামুংসহ নানান ধরণে সংস্কৃতি। সচেনতার অভাব বলেই এই সংস্কৃতি গুলো বহুদিন ধরে তেমনটা চর্চা নেই, বর্তমানে বিলুপ্তি হয়ে যাচ্ছে। তাই বর্তমানে শিক্ষিত হার বাড়ছে বলে তাদের চিন্তা, চেতানার বিকাশমান হচ্ছে ঐতিহ্যময় সংস্কৃতি গুলো বর্তমান প্রজন্মদের সাথে টাল মিলিয়ে আবার চর্চার শুরুর করছে।

ত্রিপুরাদের জনপ্রিয় ও ঐতিহ্যবাহী গড়িয়া নৃত্য, নাইতং রাচামুং ও সমুর বাজিয়ে এবং কোচাই পানি পান এবং ছিটিয়ে ছিটিয়ে গ্রামের সামাজিক মানচিত্র পাড়ায় উন্নয়ন মূলক চিত্র এবং স্বপ্নের পরিকল্পনা উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের গ্রামের ভিশন, সাংগঠনিক কাঠামো, পাঠাগার ও সাংস্কৃতিক বিকাশ কেন্দ্রের কার্যক্রম কাগজের আঁকানো দৃশ্য গুলো উপভোগ করে করে পরিদর্শন করেছে ব্রেড ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি এডা কার্লিস (জার্মানি) ।

এই উপলক্ষে খাগড়াছড়ির ভাইবোনছড়া ছোটবাড়ী পাড়ায় এলাকাবাসী আয়োজনে দাতা সংস্থার প্রতিনিধি কর্তৃক এআরএডি- সিএইচটি প্রকল্পের কার্যক্রম পরিদর্শন উপলক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকালে রির্সোস সেন্টার প্রাঙ্গণে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্রেড ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি এডা কার্লিস। অনুষ্ঠানে ছোটবাড়ী পাড়া কার্বারী কিনারাম ত্রিপুরা সভাপতিত্বে অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন খাগড়াপুর মহিলা কল্যাণ সমিতি নির্বাহী পরিচালক শেফালিকা ত্রিপুরা, কার্বারী অংহ্লাজেং মারমা, কিনাশ্রী ত্রিপুরা প্রমূখ।

আয়োজক কর্তৃপক্ষরা বলেন, ৩০ বছরে মধ্যে ছোট বাড়ী হবে উন্নয়ন শহর লক্ষ্য নিধার্রণ বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছে এলাকার সচেতন মানুষেরা।

ব্রড ফর দ্যা ওয়ার্ল্ড প্রতিনিধি এডা কার্লিস বলেন, সমাজের সামাজিক সংগঠন করে গ্রামের সমস্যা গুলো চিহ্নিত করে সমাধান করে উন্নয়ন করতে পারলে এলাকাবাসীর জন্য বিরাট অর্জন, এই অর্জন মাধ্যমে দ্রুত উন্নয়ন সম্ভব বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সুমছানাই সামাজিক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক স্বপন জ্যোতি ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি মহিলা সমিতির সম্পাদিকা টিকারানী ত্রিপুরা, শান্তি রঞ্জন ত্রিপুরা, পুষ্প রঞ্জন ত্রিপুরা, এসময় এলাকার বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

পূর্বের সংবাদ

March 2020
M T W T F S S
« Feb    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829  

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন