খাগড়াছড়ি, , শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে মারধরের স্বীকার হলেন পেয়ারা বেগ

প্রকাশ: ২০২০-০৯-০৫ ১২:১২:২৪ || আপডেট: ২০২০-০৯-০৫ ১২:১২:২৬

বাঘাইছড়ি প্রতিনিধিঃ ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে মারধরের স্বীকার হলেন পেয়ারা বেগম (৪০)। তিনি রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলাধীন তুলাবান এলাকার মোঃ খোরশেদ আলমের স্ত্রী।

৪ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মারিশ্যা ইউনিয়নের তুলাবান এর পাশে মহাজন পাড়া এলাকায় ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে মারধর করেছে বলে পিয়ারা বেগমের স্বামী বিষয়টি জানান।

আহত রোগীর সাথে কথা বলে যানা যায়, তিনি প্রতিদিনের ন্যায় তুলাবান এলাকার মহাজন পাড়ায় ঘাস কাটতে যান। ঘাস কাটা অবস্থায় তাকে পিছন দিক থেকে গাছ দিয়ে মারধর শুরু করে আবুদন চাকমা। তার চিৎকার শুনে আশেপাশে লোকজন আসলে আবুদন চাকমা পালিয়ে যায়।

পরে রোগীকে উদ্ধার করে বাঘাইছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনা শুনে হাসপাতালে ছুটে আসে, বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম এবং পার্বত্য চট্রগ্রাম নাগরিক পরিষদের নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে মারিশ্যা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, মানব জ্যোতি চাকমা বলেন, বিষয়টি আমি শুনে খুবই দুঃখ প্রকাশ করছি, যত দ্রুত সম্ভব দোষীকে শাস্তির আওতায় আনা হবে এবং সুষ্ঠু বিচার হবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.