খাগড়াছড়ি, , বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

গুইমারায় সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকের বিরোদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা।

প্রকাশ: ২০২০-০১-১৭ ১৬:৩০:৪১ || আপডেট: ২০২০-০১-১৭ ১৬:৩০:৪৮

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির গুইমারায় অবৈধ বালু ব্যবসায়ী কতৃক গনমাধ্যম কর্মীকে প্রথমে নানান হুমকি, পরে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ।

গত ২৮ ও ২৯ ডিসেম্বর যত্রতত্র বালু উত্তোলন ও স্ক্যাবেটর দিয়ে খালের পাড় কেটে বিক্রির সংবাদ, দৈনিক কালের কন্ঠ, র্পাবত্য নিউজসহ বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। এর আগে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে গত ১২ ডিসেম্বর বালু ব্যবসায়ী ও পাহাড় কাটার প্রধান সিন্ডিকেট ও গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আইয়ুব আলী গনমাধ্যম কর্মী দিদারুল আলমকে এ্যাকশন চালানো ও খেলা দেখানোর হুমকি প্রদান করে। এরপর বিভিন্ন স্থানে হয়রানিসহ নানান রকম হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে ১৬ ই জানুয়ারী আইয়ুব আলীর ছেলে সাগর খাগড়াছড়ির বিজ্ঞ আমলী আদালতে চাদাঁ চেয়েছে মর্মে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য গুইমারা থানার পুলিশকে দায়িত্ব অর্পন করে। প্রথমে আইয়ুব আলী ও তার ছেলে স্থানীয় মসজিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক জামালকে ক্ষমতার চাপ প্রয়োগ করে মামলাটি করানোর চেষ্টা করে ।জামাল বিষয়টি বুঝতে পেরে সরে আসে। পরবর্তীতে আইয়ুব আলী তার ছেলেকে দিয়ে মিথ্যা মামলাটি দায়ের করেছে।

মামলায় বিবরনে যা রয়েছে, সাগরকেএকটি পাহাড় কেটে দেওয়ার জন্য স্থানীয় মসজিদ কমিটি লিখিত ভাবে দায়িত্ব দিয়েছে। সে সরকারী অনুমতি ছাড়া অবৈধ ভাবে স্ক্যাভেটর দিয়ে পাহাড় কেটে মাটিগুলো ট্রাক সমিতির পিছনে ফসলি জমি ভরাটের জন্য পেলছে।এসময় বেআইনিভাবে পাহাড় কাটার জন্য গনমাধ্যম কর্মী দিদারুল আলম প্রকাশ্যে মসজিদের সামনে, মামলার বাদী সাগরের কাছে ত্রিশ হাজার টাকা চাদা দাবি করেছে ( মিথ্যো বক্তব্য)। না হয় খবর প্রচার করার হুমকি দিয়েছে সাংবাদিক।তবে সাগরের ক পক্ষে টাকা দেওয়া সম্বব হয়নাই এবং সে অপারগতা স্বীকার করেছে। সবশেষে সে মসজিদ কমিটির সাথে কথা বলতে বলেছে। থানায় গেলে পুলিশ তার মামলা গ্রহন করেননি। মামলার সাথে পাহাড়ের মাটি কাটার চুক্তিপত্র ও ভবন নির্মান কমিটির কপি সংযুক্ত করেছে। কিন্তু বাস্তবে সাগর বিশাল পাহাড়টি স্ক্যাভেটর দিয়ে কেটে ট্রাক সমিতির ফসলি জমি ভরাট করার জন্য দায়িত্ব নিয়েছে। মসজিদকে পুঁজি করে প্রতি গাড়ি মাটি দুই হাজার টাকা হারে মোট চারশত গাড়ি মাটি বিক্রি করেছে। অবৈধ হলেও এটা তাদের ব্যবসা। বিনিময়ে মসজিদ শুধু জায়গাটি সমান করেছে। চুক্তি মতে মাটি বিক্রি থেকে মসজিদ কোন টাকা পাবেনা। এরপরও মসজিদের বিষয়ে কোন গনমাধ্যম কর্মী সংবাদ প্রকাশ করেনি। সাগর বা কমিটির কোন লোকের কাছে যায়নি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনা স্থলে গিয়ে দশ হাজার টাকা জরিমান করেছে। পূর্বে বালু উত্তোলনের সংবাদে ক্ষিপ্ত হয়ে ধারনা করছে, সাংবাদিক দিদার সংবাদ প্রকাশ করেছে বা ইউএনওকে জানিয়েছে। কিন্তু বাস্তবে কোন সংবাদ প্রকাশ করা হয়নি। সন্দেহ আর অনুমানের উপর ভিত্তি করে মিথ্যা ,অবান্তর ও বিভ্রান্তি ছড়িয়ে আদালতে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে সাগর। অপর দিকে ভবন র্নিমান কমিটির সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আ: কাদের বলেছেন, তাকে মামলা দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। তবে তিনি রাজি হননি।চাদাঁ চাওয়ার বিষয়ে তাকে কেও জানায়নি। গনমাধ্যম কর্মীর সাথে এ বিষয়ে কোন কথা হয়নি তার। এবং তার কাছে কোন চাদাঁ চায়নি সাংবাদিক দিদার। তিনি মিথ্যা মামলা দিতে উৎসাহীদের নিষেধ করেছেন। তারা তার নিষেধ অমান্য করেছে। সাধারন সম্পাদক জামাল উদ্দিন জানান,তার কাছে ও কেও চাদাঁ চায়নি। মামলার বিষয়ে তার কোন আগ্রহ নেই। গনমাধ্যম কর্মী দিদারের সাথে তার বিশ বছরের ভালো সর্ম্পক। তবে সাগর মামলা দিতে চায়। মূলত পিতার রাজনৈতিক ক্ষমতার প্রভাবে উপজেলার তৈকর্মা এলাকায় সাগর অবৈধ ভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন ও খালের পাড় কেটে বেপরোয়া ভাবে বিক্রি করছে। সংবাদের প্রয়োজনে ওখান থেকে ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করতে গেলে গত ১০ ডিসেম্বর নানান ভাবে গনমাধ্যম কর্মীকে হুমকি প্রদান করে সাগর ও তার বাবা আইয়ুব আলী। পরে আইয়ুব আলী ফেসবুক ফাইলে জঘন্যতম ভাবে হুমকি দেয় দিদারকে। এছাড়া চুক্তির মাধ্যমে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পাহাড় কেটে মাটি বিক্রি করে তারা। তাদের বিষয়ে কেউ কথা বললে ক্ষমতার অপব্যবহার করে হুমকি দেয়। হয়রানি করার চেষ্টা করে নানান ভাবে ।

জানাযায় মসজিদ কমিটির সাথে চুক্তি করে সাগর। নিজেদের ক্ষমতায় মাটি গুলো কেটে দেওয়ার । প্রশাসনসহ যাবতীয় দায়ভার তার। এখানে মসজিদ কতৃক্ষ কোন দায়ভার নিবেনা। এভাবে উপজেলা আওয়ামীরীগের সহসভাপতি পদের দাপট দেখিয়ে পাহাড় কাটা, বালু উত্তোলন, খালের পাড় কেটে বিক্রিসহ নানান ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা। আর জিম্মি করে রেখেছে প্রতিবাদ কারীদের।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

পূর্বের সংবাদ

February 2020
M T W T F S S
« Jan    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন