খাগড়াছড়ি, , শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১

প্রধানমন্ত্রী থেকে পুরষ্কার পাওয়ার পরও কাপ্তাইয়ের সন্তান সাবেক জাতীয় ফুটবলারদের নেই কদর

প্রকাশ: ২০২০-১২-৩০ ০৮:৫৩:০১ || আপডেট: ২০২০-১২-৩০ ১৫:৪১:৫৯

মাহফুজ আলম, কাপ্তাইঃ প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা থেকে পুরষ্কার পাওয়ার পরও কাপ্তাইয়ের সন্তান কিংবদন্তি সাবেক জাতীয় ফুটবলারদের অভিনন্দন, মুল্যায়ন ও কদর নেই কাপ্তাই উপজেলার কোথাও। স্হানীয় সচেতন মহল ও উদীয়মান খেলোয়াড়দের মধ্য থেকে অভিযোগ উঠেছে অনিয়ম,অব্যাবস্হাপনা,সজনপ্রীতি ও উদাসীনতার বেড়াজালে অপ্রত্যাশিতভাবে কাপ্তাইয়ের সুনামধন্য ৮ টি ফুটবল ক্লাবের অপমৃত্যু ঘটেছে। খেলার মাঠ গুলোর বেহাল অবস্থা, দেড় যুগের ব্যবধানে ক্রীড়া,সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ক্লাব সংগঠন গুলোর প্রায় শ’ শ’ ফুটবল খেলোয়াড়র ও সাংস্কৃতিক প্রতিভা বান কর্মীগন সংগঠকের অভাবে অসময়ে ঝরে পরতে হয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা দেখা গেছে কাপ্তাইয়ের এক সময়কার খ্যাতিমান তরুন সংঘ, সবুজ সংঘ,প্রগতি ক্লাব, অবকাশ ক্লাব, একতা সংঘ,ড্রাগন সংঘ,তিবরিজি ক্লাব, যুব সংঘ, এফআই ডিসি ক্লাব, জালালাবাদ ক্লাবসহ আরো অনেক গুলো ক্রীড়া সংগঠন বন্ধ রয়েছে।ফলে বলাযেতে পারে ঝিমিয়ে পড়া সংগঠন গুলোর কারনে নতুন প্রজন্মের উদীয় মান খেলোয়াড় গন প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারচ্ছেনা প্রায় দেড় যুগেরও বেশি সময় ধরে।বলা যেতে পারে এ ব্যাপারে প্রায় কয়েক মাস ধরে কাপ্তাই ৯৫ ব্যাচের আয়োজিত পেইজ বুক ফুটবল লাইভ আড্ডা অনুষ্ঠানে মতামত ব্যাক্তকরেন কাপ্তাইয়ের সাবেক জাতীয় ফুটবলাররা,তারা কাপ্তাইয়ের অতিহ্যবাহী ফুটবলের স্বপ্নযাত্রা গড়তে চায় নতুন প্রজন্মের ফুটবলারদের নিয়ে।উল্লেখ্য বাংলাদেশের দ্রুততম মানব খেতাব পেয়ে ছিল কাপ্তাইয়ের সন্তান সাহান উদ্দীন চৌধুরী, আর কাপ্তাই উপজেলার সাবেক জাতীয় ফুটবলাররা হলেন- আহসানুল হক ইনু, মারী, নন্দী লাল পান্না,সাহাব উদ্দিন আজাদ, এফআই কামাল,মীর মঞ্জু,সামসুউদ্দীন চৌধুরী, বাংলাদেশ ফুটবল জাতীয় দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম, গোল্ডেন বয় খ্যাত সাহাজ উদ্দীন টিপু, নন্দী লাল লাতু,নিংছাই চৌধুরী,আসলাম খাঁন, আরমান আজিজ, বাচ্চু মিয়া,ছালে আহমেদ,আনোয়ার হোসেন হামিদ,জামাল উদ্দিন,সালাউদ্দীনসহ নাম না জানা আরো অনেকে রয়েছেন। এব্যাপারে ক্রীড়া অঙ্গন নিয় এক সাক্ষাৎকারে কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চেয়ারম্যান মফিজুল হক ও কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান বলেন অতীতের মতোই কাপ্তাইয়ের সনামধন্য ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ঐতিহ্য ফিরে আনতে সক্ষম হবো ইনশাআল্লাহ। ভালো ক্রীড়ামোদি ও সংগঠনের সংগঠকদের মুল্যায়ন য়থা- যথ ভাবে করা হবে। তবে বর্তমানে করোনা রোগ পরিস্থিতির কারনে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার প্রয়োজনে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড কিছুটা সীমিত করা হয়েছে। এছাড়াও এর আরো গুরুত্ব আরোপ এক ভিডিও বর্তায় বিশেষ বক্তব্যে দুজনের গুরুত্বপূর্ণ মতামত তুলে ধরেছেন।

এ ব্যাপারে কাপ্তাইয়ের সুশীল সমাজ ও সচেতন মহল মনে করেন ফুটবল জগতে বাংলাদেশের সুনাম অক্ষুন্ন রাখায় কাপ্তাইয়ের সন্তান কিংবদন্তি সাবেক জাতীয় ফুটবলার তথা বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক মামুনুল ইসলাম ও গোল্ডেন বয় খ্যাত সাহাজ উদ্দীন টিপুকে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা পুরস্কৃত করছেন। বিষয়টি বাংলাদেশ তথা কাপ্তাই (রাঙামাটি) বাসির জন্য গৌরবের।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.