খাগড়াছড়ি, , সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

মাটিরাঙ্গা উপজেলার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক মনোনিত রবিউল হতে চান জেলার শ্রেষ্ঠ

প্রকাশ: ২০২২-০৯-২১ ২১:০৫:২১ || আপডেট: ২০২২-০৯-২১ ২১:০৫:২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২২ শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছেন মাটিরাঙ্গা উপজেলার শিক্ষক পরিবারের সন্তান, মোঃ রবিউল আলম। উপজেলা সদর থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত শান্তিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়টিতে মোঃ রবিউল আলম প্রধান শিক্ষক হিসেবে ০২/১০/২০১৬ খ্রিস্টাব্দ থেকে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করছেন। মোঃ রবিউল আলম বিদ্যালয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক ও সৃজনশীল কাজের মাধ্যমে ইতিমধ্যে শিক্ষার্থী, এসএমসি কমিটি ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং জনপ্রতিনিধিদের মাঝে সুনাম অর্জন করেছেন।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়- প্রধান শিক্ষক রবিউল আলম এর শ্রেষ্ঠত্বের কথা জানতে চাইলে অত্র বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান সহসভাপতি মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন- আসলে রবিউল আলম প্রধান শিক্ষক হিসেবে অত্র বিদ্যালয়ের দায়িত্ব গ্রহণ করার পরে বিদ্যালয়ের বাহ্যিক সৌন্দর্য, বিদ্যালয়ে বিশাল ফলজ বাগান, পড়ালেখার মান উন্নয়ন ও নিয়মিত বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে বিদ্যালয় পরিচালনা করে এলাকাবাসীর কাছে প্রশংসা কুড়াচ্ছেন। উপজেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক বাছাইয়ে উনাকে শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত করায় বিদ্যালয়ে এসএমসি কমিটির পক্ষ থেকে উপজেলা বাছাই কমিটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার অনুপম শীল বলেন, আমার বেলছড়ি ক্লাস্টরের মাটিরাঙ্গা থেকে তানাক্যা পাড়া মেইন সড়কের পাশে বিদ্যালয়টি অবস্থিত। সড়কটিতে যাতায়াত পথে বিদ্যালয়টি দেখলে যে কারো প্রাণ জুড়িয়ে যাবে। অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দায়িত্ব নেওয়ার পরে ছাত্র-ছাত্রীদের আনন্দঘন পরিবেশ তৈরি করার জন্য বিদ্যালয় এর বাউন্ডারির পাশে সু-বিশাল নারিকেল বাগান, ভবনের বাহ্যিক সৌন্দর্য ও পড়ালেখার মান উন্নয়নে যে ভূমিকা প্রধান শিক্ষক রাখছেন আসলেই প্রশংসনীয়।

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষাপদক-২০২২ উপলক্ষে জনবহুল মাটিরাঙ্গা উপজেলা সকল প্রধান শিক্ষকের মধ্য থেকে শ্রেষ্ঠ শিক্ষকের মানদন্ডে অত্র উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব মহোদয়ের সভাপতিত্বে শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক হিসেবে উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্বের মর্যাদায় শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচন করা হয়।

শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক রবিউল আলমের অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন- শান্তিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আমার পিতা শফিক মিয়া সহকারী শিক্ষক হিসেবে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করে এই বিদ্যালয় থেকে অবসর গ্রহণ করেন। বাবার স্মৃতিকে আগলে ধরে নিজের দায়িত্ববোধ থেকে বিদ্যালয়টিকে শিশু বান্ধব পরিবেশ গড়ে তোলার চেষ্টা করে যাচ্ছি। উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হওয়া, এটা কোন বড় চাহিদা না। মূল কথা হচ্ছে আমি দায়িত্ব গ্রহণ করার পরে উপজেলা শিক্ষা অফিসার জনাব মঞ্জুর মোর্শেদ ও উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার অনুপম শীল স্যারের দিকনির্দেশনায় সকল সহ-শিক্ষক, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটি আমাকে যে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন তাতে আমি অনেক মুগ্ধ হয়েছি। সে সাথে এবারের প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২২ এ আমাকে যে সম্মান দিয়েছেন উপজেলা শ্রেষ্ঠ শিক্ষক বাছাই কমিটি তাতে আমি সকলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

উল্লেখ্য: মোঃ রবিউল আলম ২০১৪ সালে অত্র উপজেলা থেকে প্রথমবার শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হন এবং ২০২২ সালে দ্বিতীয়বারের মতো একই উপজেলায় শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষক নির্বাচিত হন। উনার শিক্ষা জীবনে চট্টগ্রাম কলেজ থেকে মাস্টার্স ও চট্টগ্রাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজ থেকে ২০০২ -০৩ শিক্ষাবর্ষে বি,এড সম্পূর্ণ করেন। উপজেলার বিষয়ভিত্তিক প্রশিক্ষক হিসেবে ( বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়) মাস্টার ট্রেইনারের দায়িত্ব পালন করেছেন। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক (বিভাগীয়) ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!