খাগড়াছড়ি, , বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২

পানছড়িতে অর্থাভাবে দুই বোনের পড়ালেখা অনিশ্চিত

প্রকাশ: ২০২২-০১-১৪ ১২:০৩:১০ || আপডেট: ২০২২-০১-১৪ ১২:২৫:১৬

মিঠুন সাহা, বিশেষ প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ি জেলার পানছড়ি উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের প্রতিবন্ধী ইয়াছিন মিয়ার দুই মেয়ে ইয়াছমিন আক্তার ও ফারজানা আক্তার সীমার অর্থাভাবে পড়াশুনা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বড় বোন ইয়াছমিন পানছড়ি বাজার উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পাশ করে এবং ছোট বোন ফারজানা আক্তার একই প্রতিষ্ঠানে অষ্টম শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়।

১৩ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২ টার সময় পানছড়ি ৩ নং সদর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদপুর গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, প্রতিবন্ধী বাবার এক হাতের কবজি নেই। মা গৃহিণী। অনেক কষ্টে দারিদ্রের সাথে লড়াই করে এতোদিন তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যায়। কিন্তু বর্তমানে তাদের পড়াশোনা চালানো অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে অসহায় এই পরিবারের কাছে।পাঁচজন সদস্য নিয়ে ভাড়া বাড়িতে থেকে তাদের দরিদ্র প্রতিবন্ধী বাবা সংসার চালাতে দিনমজুরের কাছ করছে। নুন আনতে পান্তা ফুরানো পরিবারের কাছে তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া যেন কল্পনারও বাইরে। বর্তমানে অর্থাভাবে তাদের শিক্ষাজীবন অনিশ্চয়তার পথে।

ইয়াছমিন আক্তার জানান, আমার বাবা একদিকে অসুস্থ ও প্রতিবন্ধী। আমাদের অর্থনৈতিক সমস্যার কারণে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া খুবই সমস্যা। অর্থাভাবে আমার বোন নবম শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারছে না। স্কুল ড্রেস নেই, খাতা নেই। আমারও কলেজে ভর্তি হওয়া অনিশ্চয়তার পথে। আমার বাবার পক্ষে আমাদের পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব না।

মা পারভীন বেগম বলেন, আমার স্বামী একজন প্রতিবন্ধী। আমরা অন্যের বাড়িতে ভাড়া থাকি। অভাব অনটনের সংসার আমাদের। আমার মেয়েগুলো পড়াশোনা করতে চায়। কিন্তু তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়া আমাদের কাছে খুবই অসম্ভব। এই ক্ষেত্রে সরকার ও সমাজের বিত্তবানরা যদি এগিয়ে আসেন তাহলে আমার মেয়েগুলোর পড়াশোনা চলমান রাখা যায়।

পানছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মোমিন জানান, ইয়াছিন মিয়া একজন প্রতিবন্ধী ও অসহায়। মেয়েগুলো খুব মেধাবী। আর্থিক সমস্যার কারণে তাদের পড়ালেখা চালিয়ে নিতে পারছে না তাদের প্রতিবন্ধী বাবা। এই ক্ষেত্রে যদি বিত্তবান মানুষরা এগিয়ে আসে তাহলে তারা পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারবে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: Content is protected !!