খাগড়াছড়ি, , শনিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

খাগড়াছড়িতে জাবারাং সংস্থার আয়োজনে বিশ্ব পরিবেশ দিবস পালিত

প্রকাশ: ২০১৮-০৬-০৫ ২০:১৪:১৮ || আপডেট: ২০১৮-০৬-০৫ ২০:১৪:১৮

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: ”প্লাস্টিক দুষণ বন্ধ করুন” এই প্রতিবাদ্যকে সামনে রেখে খাগড়াছড়িতে ৫ জুন উদ্যাপিত হল বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৮। দিবসটি উদ্যাপন উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

র‌্যালি সকাল ৯:৩০ ঘটিকার সময় খাগড়াছড়ি টাউন হল প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে শাপলা চত্তর প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গনে শেষ হয়। এরপর আয়োজন করা হয় আলোচনা সভা।

র‌্যালি উত্তর এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার জেলা প্রশাসক মো: রাশেদুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী অফিসার টিটন খীসা।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য ভিসিএফ নেটওয়ার্কের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জনাব স্বদেশ প্রীতি চাকমা। খাগড়াছড়িতে অবস্থিত বিভিন্ন এনজিও, ভিসিএফ জনগোষ্ঠী ও বিভিন্ন মিডিয়ার সংবাদকর্মীবৃন্দ উক্ত কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন।
জাবারাং কল্যাণ সমিতির ভিসিএফ প্রকল্পের প্রকল্প সমন্বয়কারী রিটেন তালুকদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা প্রশাসক মহোদয় বলেন, প্লাস্টিক আমাদের জীবনের সাথে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। রান্নাঘরের মসলা রাখার পাত্রও প্লাস্টিকের। কিন্তু নিন্মমানের প্লাস্টিক হওয়ায় এগুলো থেকে অনেক ক্ষতিকর ক্যামিকেল বের হয়ে জনস্বাস্থ্যের জন্য অনেক ক্ষতি করে।

প্রধান অতিথি বলেন, প্লাস্টিক ব্যবহার করলেও ব্রান্ডের প্লাস্টিক সামগ্রী ব্যবহারের উপর বেশি জোর দিতে হবে। তিনি প্লাস্টিক ব্যাগের পরিবর্তে নেটের ব্যাগ ব্যবহারের উপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। প্রধান অতিথি মহোদয় আরো বলেন, সৃষ্টিকর্তা বৈচিত্র্য পছন্দ করেন। এজন্যই তিনি এত বৈচিত্র্য সৃষ্টি করেছেন। তাই এই বৈচিত্র্যকে আমাদের রক্ষা করতে হবে। হাত ধোয়ার ব্যাপারেও তিনি সচেতন হওয়ার জন্য সকলকে আহবান জানান। তিনি বলেন, প্রত্যেক বাড়ীতে অবশ্যই টয়লেট এর সাবান এবং খাবার ঘরের সাবান আলাদা করতে হবে। কারণ টয়লেটের সাবানে অনেক জীবাণু থাকতে পারে। সেই জীবাণুযুক্ত সাবান দিয়ে খাবার ঘরে হাত ধুইলে জীবাণু হাতের মাধ্যমে পেটে গিয়ে নানা ধরণের অসুখ সৃষ্টি করতে পারে। তিনি সকলের দায়িত্বশীল কার্যক্রমের মাধ্যমে খাগড়াছড়িকে একটি সমৃদ্ধ জেলায় রূপান্তর করার জন্য আহবান জানান, যেন জাতীয় উন্নয়নে এই জেলা অবদান রাখতে পারে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে এই জেলা অন্যতম ভূমিকা পালন করতে পারে। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাকে এমন অনেক দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে, যেন এখানে যেসব কর্মকর্তার পোষ্টিং হয়, তাঁরা এটাকে শাস্তিমূলক পোষ্টিং-এর পরিবর্তে পুরস্কারমূলক পোষ্টিং হিসেবে বিবেচনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব টিটন খীসা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষণ করতে হবে। এখানকার প্রাকৃতিক পরিবেশ এখন আর আগের মত নাই। প্রকৃতি তার সৌন্দর্য হারিয়ে ফেলেছে। অপরিকল্পিত ও নির্বিচার গাছ কর্তন ও বন ধ্বংসের কারণে আমাদের নদীগুলো নাব্যতা হারিয়েছে। তিনি প্রকৃতিতে সেগুন গাছের নেতিবাচক প্রভাব তুলে ধরেন। সেগুন গাছ এতই পানি শোষণ করে যে, আশে পাশে কোন বৃক্ষই ঠিকমত বেড়ে উঠতে পারে না। তাই তিনি সেগুন চাষ নিরুৎসাহিত করতে সকলকে আহবান জানান। 

ইউএনডিপি প্রতিনিধি মি: উশিংমং চৌধূরী বলেন, প্লাস্টিক দূষণ রোধ করতে হলে জন সচেতনতা বাড়াতে হবে। নির্দিষ্ট স্থানে প্লাস্টিকের বর্জ্য ফেলতে হবে। অথবা পুড়িয়ে ফেলতে হবে। প্লাস্টিক খেয়ে অনেক গবাদি পশু ও জলজ প্রাণি মারা যাওয়ার ঘটনাও মাঝে মাঝে ঘটে থাকে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, জাবারাং কল্যাণ সমিতির নির্বাহী পরিচালক মি: মথুরা বিকাশ ত্রিপুরা। তিনি বলেন এই ধরিত্রি মাতাকে রক্ষা করতে হলে অবশ্যই পরিবেশকে রক্ষা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, প্লাস্টিক সাধারণত অপচনশীল বস্তু, যা সহজে মাটির সাথে মিশে না বা পঁচে না। ফলে আমাদের নালা -নর্দমাগুলো বন্ধ হয়ে পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।
মি: বিজয় কৃষ্ণ বালা, আঞ্চলিক পরিচালক, আনন্দ, খাগড়াছড়ি বলেন, পরিবেশ দূষণের কারণে আজ পৃথিবী হুমকির সন্মূখীন। তাই পরিবেশ দূষণ রোধ করতেই হবে।

ইটছড়ি ভিসিএফ-এর প্রতিনিধি ও পার্বত্য ভিসিএফ নেটওয়ার্কের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মিসেস তরুনা তালুকদার বলেন, গ্রামাঞ্চলে প্লাস্টিকের ব্যবহার খুব একটা হয় না। যা হয় শহরেই হয়। তাই শহরাঞ্চলেই জন সচেতনতা বাড়াতে হবে। প্লাস্টিক যে মাটিতে থাকে সে মাটিতে শাক সবজিও চাষ করা যায় না বলে তিনি জানান।

রিটেন তালুকদার
প্রকল্প সমন্বয়কারী
সিআইপি-ভিসিএফ প্রকল্প
জাবারাং কল্যাণ সমিতি
খাগড়াছড়ি

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

পূর্বের সংবাদ

February 2019
M T W T F S S
« Jan    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728  

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় প্রথম পাতা

এই সপ্তাহের আলোকিত পাহাড় শেষ পাতা

বিজ্ঞাপন