খাগড়াছড়ি, , বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০

কাপ্তাইয়ে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্ম দিন পালিত

প্রকাশ: ২০২০-১০-১৮ ২২:০৭:৩৬ || আপডেট: ২০২০-১০-১৮ ২২:০৭:৩৮

মাহ্ফুজ আলম, কাপ্তাই: রাঙ্গামাটি জেলার কাপ্তাই উপজেলা আ’লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৭ তম জন্ম দিন পালিত হয়েছে।

১৮ অক্টোবর রবিবার বিকালে কাপ্তাই নতুন বাজারস্হ দলীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাপ্তাই উপজেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাপ্তাই ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি সামশুল ইসলাম আজমীর, সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন পাটোয়ারী বাদল সহ অন্যান্ন নেতৃবৃন্দ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শহীদ শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই শেখ রাসেল ১৯৬৪ সালের এই দিনে ধানমন্ডির ঐতিহাসিক স্মৃতি-বিজড়িত বঙ্গবন্ধু ভবনে জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট মানবতার শত্রু ঘৃণ্য ঘাতকদের নির্মম বুলেট থেকে রক্ষা পাননি শিশু শেখ রাসেল। বঙ্গবন্ধু এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে নরপিশাচরা নির্মমভাবে তাকেও হত্যা করেছিলো। তিনি তখন ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। এর আগে আল্লাহর দোহাই দিয়ে না মারার জন্য খুনিদের কাছে আর্তি জানিয়েছিলেন শেখ রাসেল। চিৎকার করে তিনি বলেছিলেন, আল্লাহর দোহাই আমাকে জানে মেরে ফেলবেন না। বড় হয়ে আমি আপনাদের বাসায় কাজের ছেলে হিসেবে থাকবো। আমার হাসু আপা দুলাভাইয়ের সঙ্গে জার্মানিতে আছেন। আমি আপনাদের পায়ে পড়ি, দয়া করে আপনারা আমাকে জার্মানিতে তাদের কাছে পাঠিয়ে দিন। সেদিন বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠপুত্র রাসেলের এই আর্তচিৎকারে স্রষ্টার আরশ কেঁপে উঠলেও টলাতে পারেনি খুনি পাষাণদের মন। বঙ্গবন্ধু এবং তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যের মত এই নিষ্পাপ মহাশিশুকেও ৭৫-এর ১৫ আগস্ট ঠান্ডা মাথায় খুন করা হয়। শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বিস্তর কর্মসূচি গ্রহণ করেছে কাপ্তাই ইউনিয়নে।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.